ভালোবাসা উক্তি স্বামী স্ত্রীর সম্পর্ক

স্বামী স্ত্রীর ভালবাসার উক্তি – স্ত্রীর মন জয় করার উপায় | বউ পটানো

স্বামী স্ত্রীর ভালবাসার উক্তি

স্বামী স্ত্রীর ভালবাসার উক্তি – স্ত্রীর জন্য স্বামীর মূল্যবান উপহার: বিয়ের পর একটা সংসার গড়ে ওঠে দুজন মানুষের চেষ্টায়। রাগ, অভিমান, অভিযোগ আর ভালবাসায় গড়ে ওঠে একটা সংসার কিন্তু সুখের সংসার গড়ার উপায় কি জানেন? যদি না জানেন তাহলে আজ থেকে শুধু নিচের উক্তি গুলো পালন করুন তাহলে একটি রোমান্টিক সম্পর্ক তৈরী হবে। সুখের সংসার হওয়া নির্ভর করছে এই বিষয়গুলোর উপর।

স্বামী স্ত্রীর ভালবাসার উক্তি

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন সে অভিমান করে আপনার প্রতি!
কারণ, এ অধিকার তার আছে। তার অভিমান মূলত আপনার প্রতি তার পরম ভালোবাসারই প্রতিচ্ছবি!

বউকে ভালোবাসুন –
যখন আপনি বাসায় ফিরেন তখন সালামের মাধ্যমে।
কারণ , সে যে আপনারই অপেক্ষার প্রহর গনণা করছিল। আর এটা সুন্নাত।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন সে আপনার চা’য়ের কাপে ছোট একটি চুমুক দেয়।
কারণ, সে নিশ্চিত হতে চায় চা টি আপনার পছন্দ মত হয়েছে কি না।

জীবনসঙ্গীকে ভালোবাসুন –
যখন সে আপনাকে নামাজ পড়তে জোর করে।
কারণ সে চায় আপনারই সাথে জান্নাতে ঘর বানাতে।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন সে তাহাজ্জুদ নামাজের জন্য আপনাকে ডাকে।
কারণ,সে চায় আপনি যেন আপনার রবের ভালোবাসা থেকে বঞ্চিত না হন।

লাইফ পার্টনার ভালোবাসুন –
যখন সে আপনার সাথে এক প্লেটে খেতে চায়, আপনার মুখে খানা তুলে দিতে চায়!
কারণ,সে জানে এটা স্বামী-স্ত্রীর মাঝে ভালোবাসা বৃদ্ধি করার মহাঔষুধ।

প্রিয়তমাকে ভালবাসুন –
যখন সে আপনাকে সন্তানদের সাথে খেলা করতে বলে।
কারণ সন্তানদের অভিভাবক সে একা নয়।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন সে বলে প্রিয়তম দাড়িটা সেভ করো নাকো আর!
কারণ, সে জানে দাড়িটা যে একমুষ্টির উপর তিন দিকেই রাখা ওয়াজিব।
আর সে এটাও জানে দাড়ি সেভ করলে পুরুষত্ব শক্তি নষ্ট হয়ে যায় অতি তাড়াতাড়ি, চোখের জৌতিটাও যে যায় বেশ কমে।

মনের মানুষটিকে ভালোবাসুন –
যখন তার প্রতি মাসের নির্দিষ্ট অসুস্থ দিনগুলি আসে।
কারণ, সময়টা তার কাছে অতি বিরক্তিকর। তার সাথে বেশি করে গল্প করুন, তার নিষঃঙ্গতা দুর করুন। তার কথার গুরুত্ব করুন। তাকে টক আচার ও লজেন্স খাওয়ার ব্যবস্থা করে দিবেন।

বউকে ভালোবাসুন –
যেহেতু সে আপনাকে দৌহিক প্রশান্তি দানকারিনী।
তার কারণে আপনি পেয়েছেন অন্তরের পবিত্রতা। পেয়েছেন অর্ধেক ইমানী পূর্ণতা, মুসাফির জীবন থেকে মুক্তি।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন সে সকালে কুরআন তিলাওয়াত করে আর আপনাকেও তিলাওয়াত করতে বলে।
কারণ,সে বুঝে এটা কতোই বরকতময়।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন মাহে রমাযান আসে।
কারণ,রোজার কষ্টের মাঝেও আপনার ও পরিবারের জন্য সে ইফতার ও সেহেরী তৈরি করে।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
কারণ সে চরম শীতের মাঝেও আপনার পরিবারের জন্য রান্না করে।
আর রকমারি পিঠার কথাটাও ভুলে যাওয়া উচিত নয়।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন সে আপনার সন্তানকে পেটে ধারণ করে, সন্তান প্রসব করে।
কারণ এই কষ্ট কোন পুরুষই সহ্য করতে পারবে না!

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
কারণ সে আপনার সন্তানকে স্হনদানকারিণী, লালন-পালনকারিণী।
সে না থাকলে এতসব করতে পারতেন?

স্ত্রীকে ভালবাসুন –
যখন সে আপানাকে নিয়ে ঈর্ষানিত হয়।
কারণ, সে অন্য সমস্ত মানুষকে রেখে শুধুমাত্র আপনাকেই বেঁছে নিয়েছে।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন তার কিছু দোষ ত্রুটি আপনাকে বিরক্ত করে।
কারণ, আপনারও এমন অনেক দোষ ত্রুটি রয়েছে!

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন তার রান্না খারাপ হয়!
কারণ, সে তো ভাল রান্না করার চেষ্টা করেছে। তাছাড়া খাবারের ত্রুটি ধরাও সুন্নাতের খেলাফ।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন সকাল বেলায় তাকে উষ্কখুষ্ক দেখায়!
কারণ, সে আবার আপনার জন্যই সাজগোজ করবে।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন সে আপনাকে সন্তানের লেখাপড়ায় সাহায্য করতে বলে।
কারণ, সে চায় আপনাকে সংসারের অংশ হিসেবে পেতে।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন সে জানতে চায় তাকে মোটা লাগছে কিনা।
কারণ, আপনার মতামত তার কাছে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ন! তাই তাকে বলুন- “প্রিয়তমা তোমাকে খুব সুন্দর লাগছে।”

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন তাকে সুন্দর দেখায়!
কারণ সে আপনারই, আর স্ত্রীরা স্বামীর নিকট থেকে সব সময় প্রশংসা শুনতে খুবই ভালোবাসে!

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন সে আপনাকে এমন কোন উপহার দেয় যা আপনার পছন্দ হয়নি!
কারণ সে আপনাকে খুশি করতেই চায়,তাই তাকে বলুন, ঠিক এমন একটি উপহারই আমার প্রয়োজন ছিল।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন তার মধ্যে কোন বদঅভ্যাসও গড়ে ওঠে।
কারণ আপনারও এমন অনেক বদঅভ্যাস আছে। ইলম ও হিকমাত আর কোমলতার সাথে তার সেই বদঅভ্যাস গুলো ছাড়ানোর সময় এখনো আপনার আছে! এই বন্ধন যে ছেড়ার জন্য নয়।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন সে অকারণেই কাঁদে!
তাকে বলুন সব ঠিক হয়ে যাবে প্রিয়তমা, আমি তোমার পাশেই বন্ধুর মত চিরদিনিই আছি এবং থাকবো।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন সে আপনার অসন্তোষজনক কিছু করে ফেলে।
এরকম তো হতেই পারে কি তাইনা, আর এর রেষও একসময় কেটে যাবে।

স্ত্রীকে ভালোবাসুন –
যখন সে আপনার কাপড়ে ভুলবশতঃ দাগ লাগিয়ে ফেলে। তাছাড়া একটি নতুন জামা আপানি এমনিতেও তো কিনতেন!

আরো পড়ুন: বউকে ভালবাসার উপায় – জীবন পাল্টে যাবে আপনার

Related posts

স্ত্রীকে জীবনে এই ১০ টি কথা কখনো বলবেন না – আদর্শ স্বামীর দায়িত্ব

valobasargolpo

ইসলামিক রোমান্টিক গল্প – ধার্মিক আদর্শ বউয়ের বখাটে স্বামী – পর্ব ১

valobasargolpo

Leave a Comment

error: Content is protected !!