মনের জগতে মনোবিজ্ঞান

সাপিয়োসেক্সচুয়াল ভালোবাসা | Sapiosexual Explanation

সাপিয়োসেক্সচুয়াল ভালোবাসা

সাপিয়োসেক্সচুয়াল ভালোবাসা | Sapiosexual Explanation: মনোজগতের একটি অন্যতম সাইকোলজিক্যাল বিষয় হল সেপিওসেক্সুয়াল বা বুদ্ধিমত্তার প্রেম। অন্যেরা যখন রুপের আগুনে জ্বলে পুড়ে ছারখার হয়ে যাচ্ছে তখন সেপিওরা বুদ্ধিমত্তার প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছে। কি শুনতে অদ্ভুত লাগছে? না বিষয়টা ন্যাচারাল। চলুন বিশ্লেষণে যাওয়া যাক।

বুদ্ধিমত্তার প্রেম কি

সুন্দর চেহারা, বাড়ি-গাড়ি আর প্রচুর টাকাপয়সাওয়ালা ছেলেটা/মেয়েটা আপনার পিছে ঘুরঘুর করছে বা বাকিরা এদের প্রেমে মগ্ন হয়ে যাচ্ছে কিন্তু আপনার মোটেও সেটার প্রতি ইন্টারেস্ট নেই। আপনি এমন এক ছেলে/মেয়েকে ফলো করছেন বা পছন্দ করছেন যে বেশ ইন্টেলিজেন্ট তাহলে আপনি ধরে নিতে পারেন যে আপনি একজন স্যাপিও, যার অর্থ বুদ্ধিমত্তার প্রেমে পড়া মানুষ আপনি, শুধু কি তাই? না শুধু এতটুকু নয় বরং প্রচণ্ড বুদ্ধিমত্তার মানুষটিকে আপনি শারীরিকভাবেও পেতে চান যেমনটা সৌন্দর্যের ক্ষেত্রে হয়।

ক্লাসের ফাস্ট বয়/গার্ল দেখতে অসুন্দর, হেবলামার্কা হলেও তার উপরে ক্রাস খাওয়া কিংবা এমন একজন বুদ্ধিমান মানুষের সাথে আপনার চলাফেরা যার বুদ্ধি, বিশ্লেষণ আপনাকে প্রবলভাবে অবাক ও আকর্ষণ করে, মনে হয় ইস কি ব্রিলিয়ান্ট! যদি প্রেম করতে পারতাম! যদি বিয়ে করতে পারতাম! তাহলে সন্দেহ নেই যে আপনি একজন সেপিও। যারা সেপিও নয় তারা ভাবতে পারেন এ আবার কেমন বিষয়? জী আপনার মত আমারো তাই মনে হয়, কারণ আমি সেপিও নই। তাই যারা সেপিও তারাই শুধু এটার সাথে একমত।

সেপিওদের প্রেম

সেপিওদের পটানো কিন্তু মোটেই সহজ নয় কারণ এরা আপনার সৌন্দর্যে পটে না, সৌন্দর্য পছন্দ করে কিন্তু বুদ্ধিমত্তাকে গুরুত্ব দেয় সবার উপরে, এরা দ্রুত কাউকে বন্ধু বানায় না, আর নিজ বৃত্তে খুব কম সংখ্যক মানুষের সাথে এরা মিশে। আপনি হয়তো ভাববেন অহংকারী কিন্তু তা নয়, তার মনের এই জগতে সে বাঁধা। আর এই বাঁধা অতিক্রম করতে পারে ইন্টেলিজেন্টরা।

একবার সেপিও যদি আপনাকে বন্ধু বানায়, কিংবা আপনার প্রেমে পড়ে তবে সন্দেহ নেই যে সেটা বেশ সিরিয়াস ও শক্ত আয়নিক বন্ড টাইপের। কারণ তারা প্রেমে পড়ার আগে আপনাকে বন্ধু বানাবে, আপনার বুদ্ধির দৌড় কতদূর তা যাচাই করবে, যখন দেখবে আপনার বুদ্ধির দৌড় উসাইন বোল্টের মত ক্ষিপ্র তখন আর চাইলে নিজেকে আটকাতে পারবে না সে। সে হয়তো মুখ ফুটে আপনাকে কিছু বলতে পারবে না, কিন্তু আপনাকে সে নিজের ব্যাপারে অনায়াসে বলবে, আপনাকে প্রচণ্ড মাত্রায় বিশ্বাস করবে। যার সুযোগ হয়তো ইন্টিলিজেন্টরা নেয় যদি খারাপ উদ্দেশ্য থাকে। মোট কথা ইন্টিলেজেন্টরা সেপিওদের অনায়াসে কাবু করতে পারে, যেমনটা সৌন্দর্য দিয়ে কাবু করা যায়।

সেপিও ও সাপিয়োসেক্সচুয়াল ভালোবাসা

তাই আপনার স্বামী-স্ত্রী বা ভালবাসার মানুষ যদি সেপিও হয় আর আপনার প্রতি তার ভালবাসা আবেগে বা বাধ্য হয়ে হয় তাহলে একটু সমস্যা আছে। কারণ সেপিওরা মনের অজান্তে বা করতে হয় করি ভেবে যদি আপনার সাথে সংসার বা প্রেম করে তবে আপনি একটু বিপদে বা বেকায়দায় আছেন। যদি আপনি সেরকম ইন্টিলিজেন্ট না হোন বা আপনার বন্ধু বা প্রতিবেশী এমন কাউকে সে পেল যে প্রচণ্ড ইন্টিলিজেন্ট তাহলে তাদের সাথে মেলেমেশায় প্রভাবিত হয়ে প্রেমে পড়ে যেতে পারে সে। তখন আর আপনাকে তেমন গুরুত্ব দিবে না, কারণ সেপিওরা শারীরিক সম্পর্কে বেশি আগ্রহী নয়।

এখন আপনি বলেন, যে শারীরিক সম্পর্কের চেয়ে বুদ্ধিমত্তার টান বেশি অনুভব করে সেকি যেন তেন মানুষ? নাহ, এরাই জ্ঞানী গুণিদের কদর দেয়া মানুষ, এরাই দার্সনিকের প্রেমে পড়া মানুষ, এরাই যুক্তি ও ব্যাখ্যা দিয়ে বোঝানো শান্ত মানুষ। বলে রাখি যে, সেপিওরা শান্ত ও ভদ্র স্বভাবের হয়, কারণ যারা বুদ্ধি ও জ্ঞানের কদর করে, তারা যুক্তি ও ব্যাখ্যা পছন্দ করে, এজন্য তারা বুঝে সহজে।

এখন শেষ কথায় আসি, আপনি সেপিও হলে মোটেও আপনার দোষ বা রোগ না, প্রতিটি মানুষের ভিন্ন ভিন্ন মনের জগত আছে, যে জগতে সব মানুষ বাস না করলেও কিছু মানুষ একসাথে বাস করে। যেমন- সেপিও মানুষ পৃথিবীতে সংখ্যায় অনেক বেশি। শুধু কি মানুষ তা কিন্তু নয় অনেক প্রাণী আছে যারা বংশ পরম্পরায় সেপিও। এক্ষেত্রে মাদী বা ফিমেল কিন্তু সেই মাদ/মেলকে বংশবিস্তারে প্রাধান্য দেয় যে অন্যের চেয়ে চালাক ও শক্তিশালী।

মনোজগতে সেপিওদের সাইকোলজি

তো যাই হোক শেষ পর্যন্ত পড়ে যারা বুঝতে পেরেছেন যে আপনিও একজন সেপিও। তাহলে আপনাকে অভিনন্দন, আপনি অন্যদের তুলনায় বেশি মানবিক মানুষ, আপনার গুরুত্ব ও প্রায়োরিটির জন্য পৃথিবিতে জ্ঞানের চর্চা আরো বাড়বে। আর আমার পক্ষ থেকে আপনার একটি সাজেশন হবে, যে কারো উপর প্রভাবিত বা বাধ্য হয়ে প্রেম/বিয়ে করবেন না। আপনি সেপিও হিসেবে এমন মানুষকে বেছে নিন যে নিত্যনতুন আপনাকে তার বুদ্ধি ও জ্ঞান দিয়ে অবাক করবে, কারণ এটি আপনাকে সবচেয়ে বেশি আনন্দ ও তৃপ্তি দিবে।

আর ইন্টেলিজেন্ট মানুষগুলোর উদ্দেশ্যে বলি এই সেপিওদের সুযোগ নিয়ে বোকা বানাবেন না বা কারো জীবন নষ্ট করবেন না। তো সবাই ভাল থাকুন, সুস্থ্য থাকুন, ঘরে নিরাপদে থাকুন। আগামী পর্বে নতুন কোন মনের জগত নিয়ে আবার আসব আপনাদের সামনে, আপনার বিশ্বাস ও ধারণাকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য প্রস্তুত থাকুন।

লেখা: Nerjhor

আরো পড়ুন- ঝগড়াটে প্রেমের গল্প – চোখের জলে ধোঁয়া আমাদের বিশুদ্ধ ভালোবাসা

Related posts

অবসেসিভ কম্পালসিভ ডিসঅর্ডার – Obsessive Compulsive Disorder

valobasargolpo

সেলফাইটিস – সেলফি আসক্তি ভয়াবহ মানসিক রোগ

valobasargolpo

2 comments

Md Nasim Ud-din May 6, 2020 at 5:25 am

very good. Now I understand that i am a Sapio

Reply
valobasargolpo May 6, 2020 at 9:10 am

thanks sapio : )

Reply

Leave a Comment

error: Content is protected !!